Dowry system paragraph with bangla meaning

Dowry system paragraph : Dowry is a social curse that has spread all over our country. Dowry system refers to the system or custom in some societies in which a bride or her family must pay money or property or both to her husband when they get married. The money or the property that are given is known as dowry. This abominable system is very disgraceful for any woman. Women are the victims of this heinous system. The whole family of the bride is to suffer because the parents or brothers of the bride are to arrange the money to give to the bridegroom or to his family. Socio-economic, cultural and religious factors are responsible for this detestable system. In some societies, it is established as a social norm and they have accepted it normally.

A poor husband wants to get a sum of money from his in-laws to start a business or to meet his other needs. In some societies, it has been a culture to give and take dowry. ‘But Islam does not support taking or giving dowry. The Hindu law, however withdraws the right of a woman’s paternal property when she gets married. For this reason, she along with her husband does not hesitate to take dowry. Due to this system, the bride’s family often gets bankrupt. Dowry system also demeans women. A social awareness against dowry system is a must to stop this evil practice. The conscious and respected people should come forward to stop it. We should even adopt a law against this system. Then, we will be able to get rid of it.

Bangla meaning of Dowry system paragraph:

যৌতুক একটি সামাজিক অভিশাপ যা সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। যৌতুকের ব্যবস্থা কিছু কিছু সমাজের এমন রীতি বা প্রথা কে বোঝায় যেখানে একটি নববধূ বা তার পরিবারকে বিয়ে করার সময় অর্থ বা সম্পত্তি কিংবা উভয়ই তার স্বামীকে প্রদান করতে হবে। দেওয়া অর্থ বা সম্পত্তি যৌতুক হিসাবে পরিচিত হয়। এই ঘৃণ্য প্রথা যে কোন মহিলার জন্য খুব অবমাননাকর। নারীরাই এই জঘন্য সিস্টেমের শিকার হয়। নববধূর পুরো পরিবারকে দুর্ভোগ পোহাতে হয় কারণ নববধূর পিতামাতা বা ভাইদেরকে বরকে বা তার পরিবারকে প্রদানের জন্য অর্থের ব্যবস্থা করতে হয়। সামাজিক-অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং ধর্মীয় কারণ এই ঘৃণ্য সিস্টেমের জন্য দায়ী। কিছু সমাজে, এটি একটি সামাজিক নিয়ম-কানুন হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং তারা সাধারণ ভাবেই এটিকে গ্রহণ করেছে।

একটি দরিদ্র স্বামী ব্যবসা শুরু করতে বা তার অন্যান্য চাহিদা পূরণের জন্য তার শ্বশুর থেকে প্রচুর অর্থ পেতে চায়। কিছু কিছু সমাজে, যৌতুক দেওয়া নেওয়া একটি সংস্কৃতিতে পরিণত হয়েছে। ‘কিন্তু ইসলাম ধর্ম যৌতুক গ্রহণ বা দেওয়ায় সমর্থন করে না। হিন্দু আইনে, বিয়ের সময় একজন মহিলা তার পিতৃত্ব সম্পত্তির অধিকার থেকে বঞ্চিত হয় । এই কারণে, সে ও তার স্বামী যৌতুক নিতে দ্বিধা করে না। এই ব্যবস্থার কারণে, নববধূ পরিবার প্রায়ই দেউলিয়া হয়ে যায়। যৌতুকের ব্যবস্থা নারীদেরকে হীন করে। যৌতুক পদ্ধতির বিরুদ্ধে সামাজিক সচেতনতাবোধ জাগ্রত করে এই মন্দ অভ্যাসটি বন্ধ করতে হবে। এটি বন্ধ করতে সচেতন এবং সম্মানিত মানুষদের এগিয়ে আসতে হবে। এমনকি এই সিস্টেমের বিরুদ্ধে একটি আইন গ্রহণ করা উচিত। তারপর, আমরা এটা পরিত্রাণ পেতে সক্ষম হবো।

Nice paragraph about dowry system
5

Summary

well written paragraph about dowry  system . its easy to understand because its written  with meaning .

Sending
User Review
5 (2 votes)

Leave a Reply